Chairman

slider3সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরী

অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরী। তাঁর পিতার নাম সাইয়্যেদ আবু জাফর আব্দুল্লাহ্। তিনি ৫ মার্চ, ১৯৪৫ ঈসায়ী সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি প্রথম শ্রেণিতে হাদীস শাস্ত্রে ‘কামিল’ ডিগ্রি অর্জন করেন, যা এমএ সমমানের। তিনি মক্কাস্থ উম্মুল ক্বুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আরবি ভাষা ইনস্টিটিউট থেকে আরবি ভাষায় ডিস্টিংশনসহ উচ্চতর ডিপ্লোমা ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি মাতৃভাষা বাংলাসহ আরবি, উর্দূ, ফার্সি ও ইংরেজি ভাষায় পারদর্শী। তাঁর পেশাগত ও প্রশাসনিক জীবন গৌরবের দীপ্তিতে ভাস্বর। তিনি যেসব বিষয়ে শিক্ষকতা করেছেন সেগুলো হল- তাফসীর, সহীহ আল-বুখারী, আবু দাউদ, তিরমিযী, আক্বীদাসংক্রান্ত বিষয় তাওহীদ, আরবি ও উর্দূ ভাষা।

তিনি ২৬ বছর জামেয়া কাসেমিয়ার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান। তিনি ‘সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ কাউন্সিল ফর ইসলামিক ইনস্যুরেন্স অব বাংলাদেশ’-এর চেয়ারম্যান। এটিএন বাংলা টিভি চ্যানেলের উপদেষ্টা ও ইসলামী অনুষ্ঠানের ভাষ্যকার। তিনি ‘সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ’ ও সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের শরী‘আহ্ সুপারভাইজরি কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া তিনি বিভিন্ন বীমা, শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং ইয়াতিমখানা ও মসজিদের সাথে বিভিন্ন পদে অধিষ্ঠিত থেকে দেশ, জাতি ও মানবতার সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। তিনি গবেষণা ক্ষেত্রেও সাফল্যের সাথে পদচারণা করছেন। ইসলামী ব্যাংক ও ইসলামী বীমা কোম্পানিগুলোতে শরী‘আহ্ অনুশীলন তদারকির গুরুত্বের ওপর প্রবন্ধমালা উপস্থাপন করেছেন। ঢাকায় অনুষ্ঠিত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সেমিনারে পেশকৃত তাঁর বেশ কয়েকটি প্রবন্ধ স্থানীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত একটি জাতীয় সেমিনারে উপস্থাপিত তাঁর প্রবন্ধের শিরোনাম ছিল- ‘ইসলামী সমাজ থেকে দারিদ্র্য দূরীকরণে যাকাতের ভূমিকা ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন’, যা ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক প্রকাশিত ও পরিবেশিত হয়। এ ছাড়াও তাঁর আরো গুরুত্বপূর্ণ রচনাবলি রয়েছে। তিনি কয়েকটি গ্রন্থ সম্পাদনা ও পরিমার্জন করেছেন। এগুলোর মধ্যে সবিশেষ উল্লেখযোগ্য হল- কিতাবু হুকমির রিদ্দাহ ফিল ইসলাম, মাবাদিউস সিয়াসাহ ফিল ইসলাম প্রভৃতি।

তিনি দা‘ওয়াহ ও ইসলাম প্রচারের ক্ষেত্রেও অসামান্য অবদান রেখে যাচ্ছেন। তিনি ‘মাজলিসুল ইসলাহ বাংলাদেশ’ নামে একটি ইসলামিক এনজিওর চেয়ারম্যান। বর্তমানে তিনি শরী‘আহ্সংক্রান্ত বিষয়ে উদ্ভূত বিভিন্ন সমস্যার বাস্তবসম্মত সমাধানের আলোচনা করে থাকেন। তাঁর এ আলোচনা ‘এটিএন বাংলা’ চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। ইতঃপূর্বেও তিনি দেশি-বিদেশি বেতারের সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি বিভিন্ন ইসলামী সেমিনার ও অর্থনীতিবিষয়ক সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি, ইটালিসহ বহু দেশ ভ্রমণ করেছেন।