সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ডের ৩৮তম সাধারণ অধিবেশন অনুষ্ঠিত

সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস্ অব বাংলাদেশ-এর ৩৮তম সাধারণ অধিবেশন ১৫ নভেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় পুরানা পল্টনস্থ ব্যাংক এশিয়া লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ের বোর্ডরুমে অনুষ্ঠিত হয়। বোর্ডের সম্মানিত চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন এবং সম্মানিত সেক্রেটারি জেনারেল জনাব মোঃ আবদুল্লাহ শরীফ এটি পরিচালনা করেন। সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ডের সম্মানিত উপদেষ্টা জনাব শাহ্ আব্দুল হান্নান ও নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব এম আযীযুল হকসহ অন্যান্য সম্মানিত সদস্যবৃন্দ উক্ত অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।

অধিবেশনে ব্যাংকিং কার্যক্রমের সকল ক্ষেত্রে যথাযথভাবে শরীয়াহ্ পরিপালনের উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। এ ছাড়াও বোর্ডের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করা হয়। অধিবেশনে উপস্থিত সদস্যবৃন্দ সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ড কর্তৃক বাস্তবায়িত বিভিন্ন কর্মসূচিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং এসব কর্মসূচির পরিধিকে আরো বিস্তৃত করার পরামর্শ প্রদান করেন।

অধিবেশনে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেড, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড, এবি ব্যাংক লিমিটেড, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, যমুনা ব্যাংক লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, দি সিটি ব্যাংক লিমিটেড, দি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ব্যাংক আল-ফালাহ লিমিটেড, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, পূবালী ব্যাংক লিমিটেড, ট্রাষ্ট ব্যাংক লিমিডেট, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড ও ইসলামিক ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডসহ ২২টি সদস্যপ্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, শরীয়াহ্ সুপারভাইজরি কমিটি/কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও সদস্যসচিব/সচিবগণ এবং সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ডের গবেষক ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

One thought on “সেন্ট্রাল শরীয়াহ্ বোর্ডের ৩৮তম সাধারণ অধিবেশন অনুষ্ঠিত

  1. বাংলাদেশে একমাত্র শরীয়া ভিত্তিক অর্থনৈতিক সুপারভাইজরি প্রতিষ্ঠান হিসেবে সেন্ট্রাল শরিয়া কাউন্সিল একাডেমিক ধারায় আরো বহু বিস্তৃত বর্ণিল দায়িত্ব পালনে তৎপর হবে আশা করি। দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্ট সহ অর্থনীতি ডিপার্টমেন্টে এ কাউন্সিলের পক্ষ থেকে উপযুক্ত দক্ষ ব্যক্তিগণকে ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবে শরীয়ার নানা দিক সম্পর্কে দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষিত ব্যক্তিগণকে অবহিত করতে পারলে ফিলট্রেশনের ধারায় এ শিক্ষা ছড়িয়ে পরবে বলে আমার বিশ্বাস। ইসলামিক ফাইন্যান্স পত্রিুকাটির আরো মানোন্নয়নের মাধ্যমে এটিকে একটি মাসিক একাডেমিক জার্নালে রূপ দেয়া দরকার। এর সাথে জড়িত সবার প্রতি থাকলো আন্তরিক ভালবাসা ও শুভ কামনা। ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *